রহস্য, ভৌতিক ও গোয়েন্দা

Items Showing 1 to 24 from 48 books results

ড্রাকুলা (ব্র্যাম স্টোকার)

রোমেনা আফাজ
  • ৳৭০

‘ড্রাকুলা’ ১৮৯৭ সালে গথিক ধারার লেখা একটা ভয়াল উপন্যাস। রচয়িতা আইরিশ সাহিত্যিক ব্র্যাম স্টোকার। তার রচনায় ভ্যাম্পায়ার (রক্তচোষা বাদুড়) কাউন্ট ড্রাকুলা চরিত্রটি প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছে। উপন্যাসটিতে রক্তচোষা কাউন্ট ড্রাকুলা তার নিজ গ্রাম ট্রান্সসিলভ্যানিয়া থেকে ইংল্যান্ডে এসে ঘাঁটি গাড়ে। যাতে ও আরও নতুন রক্ত পান করতে পারে, ও আরও দীর্ঘ জীবন লাভ করতে পারে। ওর এই অন্যায় কাজে বাধা হয়ে দাঁড়ান অধ্যাপক আব্রাহাম ভ্যান হেলসিং। তার সাহায্যকারী হয়ে তার সাথে থাকে জনাথন, মরিস, মিনা হারকার। ড্রাকুলা লেখার পর ভয়াল উপন্যাস, প্রেত কাহিনি লেখার একটা ধারা তৈরি হয়ে যায় ইউরোপিয় সাহিত্যে।

বেজক্যাম্প হোটেলের মধ্যরাত

রোমেনা আফাজ
  • ৳৪০

আমি আর এলিটা দাঁড়িয়ে আছি ব্যালকনিতে। জমে যাওয়া ঠাণ্ডায় ঘুমিয়ে গেছে পুরো পারো। নিস্তব্ধ পৃথিবী। এলিটার নিঃশ্বাসের শব্দ স্পষ্ট। শব্দের সাথে অনুমান করা যায় তার নাকের কাছটা তিরতির করে কেঁপে উঠছে। শরীরে পুলওভার চাপিয়েছি। কে জানতো ফের এই বেজক্যাম্পেই এসে ঠেকবো, কে জানতো আবার আমাদের দু’জনকে প্রকৃতি এই বারান্দায় এনে ফেলবে, ঠিক এমনই নিশিরাতে। ঠিক যেন সেই রাত ফিরে এসেছে, যেখান থেকে ভালো মন্দের শুরু। যেখান থেকে টর্নেডো শুরু হয়ে পরিণত হলো শান্ত সমুদ্রে। আজকের সাথে সেদিনের পার্থক্য এক জায়গায়। সে রাতে চাঁদ ছিল না। আজকের ঘুমন্ত পারোর আকাশে এক থালা নিঃসঙ্গ চাঁদ রয়েছে। পারোর শীত, কুয়াশার চাদর জোছনাকে মলিন করতে পারেনি বটে। ফিনকি দিয়ে ঝরছে চাঁদের আলো। এলিটার মুখ যেন গ্রামের মেলা থেকে কেনা এক টুকরো ঝকঝকে আয়না, আলো প্রতিফলিত হয়ে চাঁদকেই ফিরিয়ে দিচ্ছে।

আসমান

রোমেনা আফাজ
  • ৳৫০

আমেরিকার কুখ্যাত জেল গুয়ানতানামো বে থেকে বিনা বিচারে ১২ বছর জেল খেটে মুক্তি পেয়েছে এক বাংলাদেশি। ওয়াশিংটন পোস্টের এই খবরে চমকে গেছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সাফ জানিয়ে দিয়েছে এমন সন্ত্রাসীর দায়িত্ব বাংলাদেশ নেবে না। আমেরিকান আর্মির কার্গো প্লেন তাকে ফেলে গেছে আলবেনিয়ার তিরানা বিমান বন্দরে। ট্রাভেল ডকুমেন্টহীন দেশহীন মানুষটাকে পৃথিবীর কোনো দেশ রাজনৈতিক আশ্রয় দেয় না। রিফিউজির স্ট্যাটাস নিয়ে তাকে থাকতে হবে রেডক্রসের শেল্টারে। মানুষটা এখন কোথায় যাবে? চেনা সব দরজা বন্ধ হয়ে গেলে, একটা অচেনা দরজা খুলে যায়, জীবন বন্দি হয়ে গেলে সেটা জীবনকেও ছাপিয়ে যায়, সেই জীবনের গল্প জীবনের চেয়েও বড় হয়ে যায়... The Fiction Based on Fact; এই উপন্যাসের স্থান সত্য, কাল সত্য, ইতিহাস সত্য, কাল্পনিক শুধু এর চরিত্রগুলো।

সিসেমের দ্বিতীয় দরজা

রোমেনা আফাজ
  • ৳৮০

স্বপ্ন আর বাস্তবের বিভ্রমে পড়ে খুন হয় সুবর্ণা। অচিনের উদ্দেশে স্টিমারে ওঠে মুনতাসির। ঘোর-লাগা চন্দ্ররাত্রিতে সমুদ্রের ঘাই খেয়ে ঝলসে উঠা ঢেউ দেখতে দেখতে ঘাড়ে পূর্বাশার নিঃশ্বাসের গন্ধ অনুভব করে। অপরূপা পূর্বাশার সঙ্গে নানা কথোপথনের দীর্ঘ যাত্রা চলতে থাকে। সুবর্ণার পিঠাপিঠি পালিত ভাই অপুর প্রতি সুবর্ণার বাড়াবাড়ি প্রগাঢ় মায়া ভালোবাসাকে সবাই সন্দেহের চোখে দেখে। মুনতাসিরের হাতে অস্ত্র ওঠে সেই কারণেই। এইসব দিক চক্রে মুনতাসির যেখানে পৌঁছায় সেখানেও তার দেখা হয় আরেক অথবা একই সুবর্ণার সঙ্গে। সুররিয়ালিস্টিক এই উপন্যাসটি কখনো সত্যের মতো মিথ্যা, কখনো মিথ্যার মতো সত্যে আক্রান্ত।

হিমুর রূপালী রাত্রি

রোমেনা আফাজ
  • ৳৬০

হিমু ও তামান্নার বিয়ের কার্ড দেখতে সুন্দর হলেও রূপা হাসলো। এমনিতে সে খুব কম হাসে। ছোটবেলায় কেউ বোধহয় তাকে বলেছিলো কম হাসতে। তাকে বিষণ্ণ অবস্থায় দেখতে ভালো লাগে। ব্যাপারটা তার মাথায় ঢুকে গেছে, সে জন্যেই সারাক্ষণ বিষণ্ণ থাকে। এই নিয়ে সে হাসলো চারবার, পঞ্চমবার হাসলেই ম্যাজিক নাম্বার পূর্ণ হবে। ‘হাসছ কেন রূপা?’ -তুমি বদলে যাচ্ছ এই জন্যে হাসছি। মানুষকে আগে তুমি ধোঁকা দিতেনা, এখন দিচ্ছ। ‘কাকে ধোঁকা দিচ্ছি?’ -তামান্না নামের মেয়েটাকে দিচ্ছ। বিয়ের রাতে সবাই উপস্থিত হবে শুধু তুমি হবে না। তুমি জ্যোৎস্না দেখতে জংগলে চলে যাবে। মেয়েটার কি হবে ভেবেছ কখনো?

Items Showing 1 to 24 from 48 books results

Boighor

Stay Connected