কমিক্স

Items Showing 1 to 8 from 8 books results

নীলকমল আর লালকমল

সব্যসাচী চাকমা
  • ৳২০

ঠাকুরমার ঝুলি পড়েননি এমন বাঙালি-বাংলা ভাষাভাষী খুঁজে পাওয়া কঠিন হবে। স্বয়ং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ঠাকুরমার ঝুলির অকুণ্ঠ প্রশংসা করেছেন যে এত খাঁটি দেশী জিনিস মনে হয় আর নেই, বাস্তবেও তাই। আমাদের বাংলা ভাষাভাষীদের একেবারে রক্তের ভেতরে মিশে থাকা এইসব ব্যাঙ্গমা ব্যাঙ্গমি, রাজকন্যা রাজপুত্র, ময়ূরপঙ্খি নাও। এই অসাধারণ লােক-রুপকথা নিয়ে ঢাকা কমিক্সের একটি উদ্যোগ এই 'নীলকমল আর লালকমল' কমিক্সটি। কমিক্সটি নিয়ে একটা কথা না বললেই না সেটা হল এখানে কিন্তু একেবারে মূল গল্পটি হুবহু বলা হয়নি। এই যুগের বাচ্চারা অতি যুক্তিবাদী, আমরা যেরকম সব কিছু নিয়ম ধরে নিতাম তারা কিন্তু সেখানে প্রশ্ন করা শিখেছে, তাই মূল গল্প ধরে কিছুটা অন্যরকম করে কমিক্সটা করা হয়েছে। এই দুরূহ কাজটা করেছে এ সময়ের দুর্দান্ত আঁকিয়ে আসিফুর রহমান। তাকে অভিনন্দন। আশা করি সামনে আমরা এই সিরিজের আরাে বই নিয়ে আসবাে।

সায়েন্স মিক্স - কমিক্স

সব্যসাচী চাকমা
  • ৳২০

টিকটালিক কে? টিকটালিক হল গিয়ে এক ধরনের মাছ- নাহ মাছ নয় ঠিক। চারপেয়ে? নাহ তাও না। আসলে টিকটালিকের পরিচয় দেয়া আরেক মুশকিল। আমাদের পৃথিবীতে চরে বেডাত সে প্রায় সাড়ে সাই-ত্রিশ কোটি বছর আগে!!! সে বহু কাল আগের কথা। আজকের পৃথিবীতে আর ওকে দেখতে পাবেনা। ওর পরিচয়টা দেয়া যাক এইবেলা। মাছই বলা যেত তাকে, পানিতে সাঁতার কেটে কেটে জীবন কাটিয়ে দিতেই পারত সে অন্য হাজার জাতের মাছের ভীড়ে। কিন্তু টিকটালিকের মনে যে হাজার প্রশ্ন- পানির ওপারে ডাঙায় কী আছে? সেই কৌতুহল মেটাতেই প্রথম ডাঙায় উঠে এল সে পানির ওপরের দুনিয়াটা কেমন তা দেখতে। আর মাছের পাখনা দিয়ে তাে মাটির পৃথিবীতে হেঁটে বেড়ানাে মহা বিপত্তি, কাজেই তার পাখনাগুলাে ছিল ঠিক অন্য মাছদের পাথনার মত নয়, বরং একটু একটু পায়ের মত অনেকটা চারপেয়ে উভচর আমরা যাদের দেখি তাদের মত। সত্যি বলতে আজকের পৃথিবীতে সমস্ত উভচরের পূর্বপুরুষ হল আমাদের এই বন্ধু- টিকটালিক। তার আগে সকল প্রাণী পানিতেই বেশ ছিল। টিকটালিকের দেখানাে পথ ধরেই উদ্ভব হয় মাছ থেকে উভচর আর চারপেয়েদের, এমনকি আবির্ভাব ঘটে ধীরে ধীরে আমাদের।

জুম ২

সব্যসাচী চাকমা
  • ফ্রি বই

জুম- রাঙ্গামাটির স্থানীয় অতি সাধারণ ছেলে, ছোটবেলা থেকেই মামার সাথে সাথে ঘুরে বেড়ায়। মামা তার ভাগ্নের সাথে খেলাধুলার পাশাপাশি দীক্ষা দেয় কিভাবে ধ্যানমার থেকে প্রকৃতির কাছ থেকে শিখতে হয়। অনেক চেষ্টা করেও অস্তিরমতি জুম সেটা পারে না। এভাবেই সময় কাটার মাঝে হঠাতই একদিন খবর আসে মামা সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত। এবং সেদিনই জুমো আকস্মিকভাবে টের পায় সেই ধ্যানের ফলাফল। সে চাইলেই যে কোন গাছের মত রুপ ধারন করতে পারে, আর নিয়ন্ত্রণ করতে পারে অরণ্যের শক্তিকে। এই শক্তি নিয়ে কি করবে বুঝে ওঠার আগেই তার ওপর এল অতর্কিত হামলা কেন এই হামলা আর কিভাবেই তার আসল মা পয়েছিলো এই নিয়ে রহস্য দানা বাঁধলো। জুম ২ এ এবারে সেই রহস্যের কিনারার সূত্রপাত।

Items Showing 1 to 8 from 8 books results

Boighor

Stay Connected