‘আমি ক্লান্ত প্রাণ এক, চারিদিকে জীবনের সমুদ্র সফেন, আমারে দু-দণ্ড শান্তি দিয়েছিল নাটোরের বনলতা সেন।’ ক্লান্ত প্রাণ জীবনানন্দ দাশ দু-দণ্ড শান্তি পেয়েছিলেন বনলতা সেনের কাছে। তিনি কবি, শান্তির সন্ধান করেছেন নিজের মতো করে। অস্থির দুনিয়ায় অশান্ত জীবন আমাদের। প্রতিনিয়ত ছুটে চলা ঊর্ধ্বশ্বাসে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জীবনকে স্বাচ্ছন্দ্যময় করেছে বটে, তবে জটিলও করেছে বেশ। এই জটিলতা থেকে তৈরি হচ্ছে নানারকম অস্থিরতা। তা থেকে জন্ম নিচ্ছে ক্লান্তি, অবসাদ, হতাশাসহ নানা মানসিক জটিলতা। অস্থিরতা কমাতে পারলে জীবন হয়ে উঠবে আরও একটু স্বস্তিদায়ক। প্রশান্তি আসতে পারে দেহ-মনে। এর ফলে কাঙ্খিত সাফল্য অর্জন সহজ হয়ে ওঠে। আর এ জন্য গোড়াতেই দরকার মোটিভেশন। ‘মোটিভেশন প্রতিদিন: জীবন বদলে দেবার কথা’- বইটি আত্মবিশ্বাস, আত্মসম্মান, আত্ম-উপলব্ধি, আত্ম-মূল্যায়ন, আত্ম-উন্নয়নের মাধ্যমে ‘দু-দণ্ড শান্তি’ এনে দিতে কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে আমাদের বিশ্বাস। ব্যক্তির মোটিভেশনের জন্য এটি একটি অপরিহার্য হ্যান্ডবুক। আট থেকে আশি সকল বয়সের সব শ্রেণি-পেশার মানুষের উপকারে আসবে বইটি।

উইং কমান্ডার ড. তাবারক হোসেন ভূঁঞা, পিএসসি ২০০৫ সালে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী থেকে অবসর গ্রহণ করেন। তিনি ডিফেন্স সার্ভিসেস্ কমান্ড এন্ড স্টাফ কলেজ, মিরপুরের একজন গ্রাজুয়েট। তিনি ১৯৮৭ সালে ২৯ ডিসেম্বর বিমান বাহিনী একাডেমিতে শ্রেষ্ঠ ক্যাডেট নির্বাচিত হয়ে কমান্ড্যান্ট’স ট্রফি অর্জনপূর্বক কমিশন প্রাপ্ত হন। নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ প্রোগ্রামে সর্বোচ্চ সিজিপিএ (৪.০ এর মধ্যে ৪.০) পেয়ে চ্যান্সেলর’স স্বর্ণপদক অর্জন করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএসএস (রাষ্ট্রবিজ্ঞান) এবং এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন। একই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্টাডিস অনুষদ থেকে তিনি এমফিল এবং পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি কানাডার ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে কন্ট্রাক্ট ল’ কোর্স সম্পন্ন করেন এবং টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্লোবাল প্রফেশনাল এলএলএম ডিগ্রিও অর্জন করেন। একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ল’ ফ্যাকাল্টি থেকে তিনি ইন্টারন্যাশনালী ট্রেইনড্ লইয়ার’স প্রোগ্রাম সম্পন্ন করেন। তাছাড়া তিনি ব্যারিস্টার এবং সলিসিটর হিসেবে ল’ প্র্যাকটিসের জন্য কানাডার ফেডারেশন অব ল’ সোসাইটিজ-এর ন্যাশনাল কমিটি অন অ্যাক্রেডিটেশন (এনসিএ) থেকে সার্টিফিকেট অব কোয়ালিফিকেশন অর্জন করেন। তিনি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব বিজনেস এন্ড ইকনমিক্স্ অনুষদের একজন খণ্ডকালীন অধ্যাপক। তাছাড়া তিনি দীর্ঘদিন ইস্টওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়, সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ও ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ে এমবিএ প্রোগ্রামে অধ্যাপনা করেছেন। তাঁর লেখা বেশ কয়েকটি নাটক বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে প্রচারিত ও দর্শকপ্রিয়তা লাভ করেছে। ১৯৬২ সালের ৩১ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়ায় লেখকের জন্ম।তাবারক হোসেন নামে তিনি লেখালেখি করেন।

No review found

Write a review

    Bad           Good
content title
Loading the player...
Boighor

Stay Connected