কবি মারুফুল ইসলামের রচনা বৈচিত্র্য ও বৈভবে বিপুল। তাঁর কাব্যপ্রবাহ এক খরস্রোতা নদী। বাঁধনহারা। দুকূলপ্লাবী। লক্ষ্যাভিসারী। সৃষ্টিশীলতার বরপুত্র তিনি। সময়ের অগ্রণী দূত। বয়ে নিয়ে আসেন নিত্যনতুন বার্তা- হৃদয়ের, মননের, জীবনের। তাঁর কবিতা ক্রমাগত খুলে দিতে থাকে অজানা অচেনা সব দরজা।

মারুফুল ইসলাম (জন্ম ২৯ মার্চ, ১৯৬৩) একজন বাংলাদেশী আধুনিক কবি। তিনি জীবিকাসূত্রে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বিসিএস)-এর একজন কর্মকর্তা ছিলেন। কমিশনার অব কাস্টমস্‌ হিসেবে ঢাকায় কর্মরত অবস্থায় ২০১৫-তে স্বেচ্ছায় ইস্তফা প্রদান করেন। মারুফুল ইসলাম ১৯৮০-এর দশকে কবিতা লিখতে শুরু করেন। তার কাব্য চেতনায় আধুনিক মানুষের নেতি, হতাশা ও দ্রোহ যেমন রয়েছে তেমনি রয়েছে প্রেম ও রোমান্টিকতা। তার প্রকাশভঙ্গি অনুচ্চ, শব্দচয়ন মনোযোগসমৃদ্ধ। কবি মারুফুল ইসলাম স্বাতন্ত্র্যে সমুজ্জ্বল। তার কবিতায় বাংলাদেশের প্রকৃতি, মানুষের প্রকাশ্য-অপ্রকাশ্য চিন্তাভাবনা, বোধ, অনুভূতি, প্রেম-বিরহ, প্রতিদিনের ছবি, মানুষে-মানুষে সম্পর্ক এই সব বিষয় মূর্ত হয়। তিনি এই সব প্রকাশে নিজস্ব একটি পথ অনুসন্ধান করেছেন ও তার একান্ত স্বাক্ষর রেখেছেন, যা তাকে অন্য কবি থেকে আলাদা করেছে নিঃসন্দেহে। কবিতা লেখা ছাড়াও তিনি প্রবন্ধ রচনা ও সাহিত্য সমালোচনা করে থাকেন। এ ছাড়া তিনি একজন শিশুসাহিত্যিক ও গীতিকার। ২০১৭ সালে তাঁকে বাংলা কবিতায় বিশেষ অবদানের জন্য বাংলা একাডেমি কর্তৃক প্রদত্ত বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত করা হয়।

No review found

Write a review

    Bad           Good
content title
Loading the player...
Boighor

Stay Connected