Bhanga Chobi

ভাঙ্গা ছবি

Product Summery

উত্তরবঙ্গের মেয়ে মনোয়ারা মল্লিকের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসা, দিদারের সাথে প্রথম প্রেম, দিদারের টাকায় মনোয়ারার সব ঠাঁট ঠমক, তারপর সুযোগবুঝে দিদারকে খসিয়ে বড় অফিসার তৌফিককে বিয়ে করে ইংল্যান্ডে চলে আসা আর সেখান থেকে শিল্পী হওয়ার লোভে স্বামী-সন্তান-সংসার ফেলে প্রতিষ্ঠিত শিল্পী পিয়ের-এর সাথে রোমে পাড়ি দেয়া- বিশ্ব নারী কল্যাণ সমিতির সদস্য মিসেস মিলারের আহ্বানে তার সারের বাড়িতে দু’দিন কাটাতে এসে পাশের বাড়িতে নিঃসঙ্গ জরাগ্রস্ত এক বৃদ্ধার সেবাদাসী মনোয়ারাকে দেখে সব মনে পড়ে যায় লেখিকার। জানতে পারেন, রোম থেকে ব্যর্থ, নিঃস্ব হয়ে যখন লন্ডনে ফেরে তখন পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেখে সেবাদাসীকে মৃত্যুর আগে বাড়িটি দান করবেন বৃদ্ধা এমন লোভনীয় প্রস্তাব বলেই নিজের শেষ আশ্রয় হিসেবে এখানে চলে আসে মনোয়ারা। কিন্তু চলে আসার আগে পুরনো বন্ধুকে মুখ ফুটে বলে আসতে পারেননি লেখিকা, কঠিন বাস্তবের সাথে কি প্রচণ্ড ধাক্কা খেতে চলেছে অতি-উচ্চাভিলাষী মনোয়ারার শেষ সুখস্বপ্নটিও।

Tab Article

উত্তরবঙ্গের মেয়ে মনোয়ারা মল্লিকের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসা, দিদারের সাথে প্রথম প্রেম, দিদারের টাকায় মনোয়ারার সব ঠাঁট ঠমক, তারপর সুযোগবুঝে দিদারকে খসিয়ে বড় অফিসার তৌফিককে বিয়ে করে ইংল্যান্ডে চলে আসা আর সেখান থেকে শিল্পী হওয়ার লোভে স্বামী-সন্তান-সংসার ফেলে প্রতিষ্ঠিত শিল্পী পিয়ের-এর সাথে রোমে পাড়ি দেয়া- বিশ্ব নারী কল্যাণ সমিতির সদস্য মিসেস মিলারের আহ্বানে তার সারের বাড়িতে দু’দিন কাটাতে এসে পাশের বাড়িতে নিঃসঙ্গ জরাগ্রস্ত এক বৃদ্ধার সেবাদাসী মনোয়ারাকে দেখে সব মনে পড়ে যায় লেখিকার। জানতে পারেন, রোম থেকে ব্যর্থ, নিঃস্ব হয়ে যখন লন্ডনে ফেরে তখন পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেখে সেবাদাসীকে মৃত্যুর আগে বাড়িটি দান করবেন বৃদ্ধা এমন লোভনীয় প্রস্তাব বলেই নিজের শেষ আশ্রয় হিসেবে এখানে চলে আসে মনোয়ারা। কিন্তু চলে আসার আগে পুরনো বন্ধুকে মুখ ফুটে বলে আসতে পারেননি লেখিকা, কঠিন বাস্তবের সাথে কি প্রচণ্ড ধাক্কা খেতে চলেছে অতি-উচ্চাভিলাষী মনোয়ারার শেষ সুখস্বপ্নটিও।

Tab Article

বাংলাদেশের প্রখ্যাত সাহিত্যিক রাবেয়া খাতুন ১৯৩৫ সালে মুন্সিগঞ্জ জেলায় নানার বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৪৮ সালে ঢাকার আরমানিটোলা বিদ্যালয় থেকে প্রবেশিকা পাশ করেন তিনি। তবে রক্ষণশীল মুসলিম পরিবারের কন্যা হওয়ায় বিদ্যালয়ের গণ্ডির পর তাঁর প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাগ্রহণ বন্ধ হয়ে যায়। তবে বিধি-নিষেধের বেড়াজাল ডিঙিয়ে তিনি লেখক হিসেবে নিজেকে প্রকাশ করেন। তার প্রথম উপন্যাস ‘মধুমতী’ তাঁতী সম্প্রদায়ের মানুষদের জীবনের দুঃখগাঁথা নিয়ে রচিত। লেখালেখি ছাড়াও সাংবাদিকতা ও শিক্ষকতাও করেছেন, দায়িত্ব পালন করেছেন আরও আরও গুরুত্বপূর্ণ পদে। একুশে পদক, বাংলা একাডেমিসহ অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন এই লেখিকা। তাঁর উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ হলো সাহেব বাজার, অনন্ত অন্বেষা, রাজারবাগ শালিমারবাগ, মন এক শ্বেত কপোতী, দিবস রজনী প্রভৃতি।

ADD A REVIEW

Your Rating

0 REVIEW for ভাঙ্গা ছবি !

এই লেখকের আরও বই

এ রকম আরও বই