নিজের লেখার ভিত্তি, সেই গল্পের সঙ্গে তার চিরন্তন চালটাকে তাঁকে ভিন্ন এক অনুভূতিতে আচ্ছন্ন রাখে। শুরু থেকেই তাঁর লেখায় জাদুবাস্তবতার মোড়কে দেহ-মনঃপীড়নের দহন অত্যাশ্চর্য ভাষার মধ্যে দিয়ে প্রতিফলিত হয়। আমাদেরই মানুষ বাতাস রোদ জীবনবাস্তবতার নিষ্ঠুর প্রয়োগ ঘটান কখনো এদেশের, কখনো বাইরের দেশের লেখকদের লেখার আবহে উদ্দীপক হয়ে, সুররিয়ালিজমের তরঙ্গের মধ্যে প্রবহমানতার মাধ্যমে। এই গ্রন্থের বেশিরভাগ গল্পই আবর্তিত করুণ শিশিরের মতো ট্রাজেডি দ্বারা। যা স্বাভাবিক নয়, অস্বাভাবিক নিকৃষ্ট যন্ত্রণা রাত্রি আঁধার কুয়াশার মতো প্রচ্ছায়া ছড়িয়ে চরিত্রগুলোকে দংশন করে আঁধারে ঠেলে দিলেও লেখক হতাশ হন নি কোথাও।

নাসরীন জাহান জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক। আশির দশকের শুরু থেকে তিনি লেখালেখি করছেন। ‘উড়ুক্কু’ উপন্যাসের মাধ্যমে তিনি খ্যাতি পান। এরপর লিখেছেন অগণিত পাঠকপ্রিয় গ্রন্থ। প্রথম উপন্যাসের জন্য পান ফিলিপ্‌স সাহিত্য পুরস্কার। এ ছাড়া বাংলা সাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের জন্য বাংলা একাডেমি পুরস্কার পেয়েছেন নাসরীন জাহান।

No review found

Write a review

    Bad           Good
content title
Loading the player...
Boighor

Stay Connected