এই বইটা গল্পের নয় কিংবা দর্শনেরও নয়। সাংঘর্ষিক অনুভূতির সংকলন বলা যেতে পারে। নাগরিক জীবনে প্রতিনিয়ত অনেক কিছু দেখেও না দেখার ভান করার বোকামি-চতুরতার অসহায় বহিঃপ্রকাশ। কেউ অনুভূতি লুকিয়ে রাখে, কেউ চুপচাপ ব্যক্তিগত ডায়েরিতে লিখে রাখে, কেউবা ইন্টারনেটে প্রকাশ করে সারা পৃথিবীকে জানিয়ে দিতে চায়। বইয়ের কোথাও কোনো ধারাবাহিকতা নেই, নেই কোনো পক্ষপাত। একদিকে ঘর্মাক্ত রিকশাচালকের মাথায় বয়ে চলা কষ্টের কথা বলা হয়েছে। অন্যদিকে শিল্পাঞ্চলের জ্যামে, নিজের বিশাল পাজেরো গাড়িতে বিরক্তি নিয়ে বসে থাকা শিল্পপতির মাথায় কী চিন্তা চলছে তা বোঝার চেষ্টা করা হয়েছে।

১৯৮০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের ২০ তারিখে জন্মগ্রহণ করেন সোলায়মান সুখন। গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া হলেও বাবার সামরিক বাহিনীর চাকরি সুবাদে দেশের বিভিন্ন শহরের বিভিন্ন স্কুল আর কলেজে পড়ালেখা করেছেন। স্কুল জীবনে দেয়াল পত্রিকায় লেখালেখির শুরু। কলেজে বাস্কেটবল আর বিতর্কের ভক্ত ছিলেন। বিতর্ক আর উপস্থিত বক্তৃতার স্ক্রিপ্ট লিখে দিতেন সহপাঠিদের। ১৯৯৭ সালে বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে অফিসার ক্যাডেট হিসেবে যোগ দিয়ে ২০০০ সালে নৌ কর্মকর্তা হিসেবে কমিশন লাভ করেন। যুদ্ধ জাহাজে টহল দেয়ার দিনগুলোতে নিয়মিত দিনপঞ্জিকা লিখতেন যা এখনো সযত্নে রেখে দিয়েছেন। ২০০৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইবিএ থেকে এমবিএ সম্পন্ন করেন। গত ১৪ বছরে কয়েকটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানে বিক্রয় ও বিপনন নিয়ে কাজ করছেন তিনি। পাশাপাশি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অতিথি লেকচারার হিসেবে পড়িয়েছেন। ২০১০ সাল থেকে ক্ষুদ্র ব্লগ ও ভিডিও ব্লগ শুরু করেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সুখন দেশের অন্যতম শীর্ষ ভিডিও ব্লগার। এ পর্যন্ত তার অনুপ্রেরণামূলক ভিডিওর সংখ্যা ৩ শতাধিক, যা ৫ কোটিবারের বেশি দেখা হয়েছে ইন্টারনেটে। সোলায়মান সুখন দেশে ও বিদেশে প্রায় ৩৫০টি অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্য দিয়েছেন। সুইডেনভিত্তিক পাট গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘জুটবর্গ’-এ তিনি গ্লোবাল সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাম্বাসেডর। সংসার জীবনে তিনি বিবাহিত ও এক কন্যা সন্তানের জনক।

Tasnim 2021-06-19 15:07:07

খুব ভালো লাগছে

Noor Zaman 2021-06-13 06:30:17

Sohoj bhabe onek kichu bolechen, chinta bhabna gulo amader daily life k reflect koreche.


Write a review

    Bad           Good
content title
Loading the player...
Boighor

Stay Connected