Bibi Khadiza

বিবি খাদিজা

Product Summery

‘বিবি খাদিজা’ গ্রন্থে শেখ ফজলল করিম একজন মহীয়সী নারীর গল্প ফুটিয়ে তুলেছেন নিপুন ভাবে। ঐতিহাসিক ঘটনার পাত্রমিত্রদের তিনি সাহিত্যের ঝর্ণাধারায় নিয়ে এসে তাদের জীবনের বোধ, আবেগ, সংগ্রাম, ভালোবাসা, ইস্পাতদৃঢ় প্রগাঢ় বিশ্বাসের গাঁথুনী দিয়ে একটি অবিনশ্বর ইমারত তিনি গড়ে তুলেনছেন। চিরন্তনতাকে মানুষের জীবনের কাছে পৌঁছে দিয়ে তাদের আলোয় জীবনকে আলোকিত করতে উৎসাহী করেছেন। বইটি পাঠকের মন প্রদীপের নির্মল আলোয় উদ্ভাসিত করবে বলেই আশা করা যায়।

Tab Article

‘বিবি খাদিজা’ গ্রন্থে শেখ ফজলল করিম একজন মহীয়সী নারীর গল্প ফুটিয়ে তুলেছেন নিপুন ভাবে। ঐতিহাসিক ঘটনার পাত্রমিত্রদের তিনি সাহিত্যের ঝর্ণাধারায় নিয়ে এসে তাদের জীবনের বোধ, আবেগ, সংগ্রাম, ভালোবাসা, ইস্পাতদৃঢ় প্রগাঢ় বিশ্বাসের গাঁথুনী দিয়ে একটি অবিনশ্বর ইমারত তিনি গড়ে তুলেনছেন। চিরন্তনতাকে মানুষের জীবনের কাছে পৌঁছে দিয়ে তাদের আলোয় জীবনকে আলোকিত করতে উৎসাহী করেছেন। বইটি পাঠকের মন প্রদীপের নির্মল আলোয় উদ্ভাসিত করবে বলেই আশা করা যায়।

Tab Article

শেখ ফজলল করিম একাধারে কবি, সাহিত্যিক ও সাহিত্য সম্পাদক। ১৮৮২ সালে রংপুরে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তাঁর কাব্যভাবনা ও সাহিত্যসাধনা প্রধানত ধর্মীয় বোধ ও নীতি-চিন্তা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। তিনি ইসলাম ধর্মের আলোকে মুসলমানদের মধ্যে আদর্শ জীবনযাত্রা এবং নীতি-উপদেশ শিক্ষা দিতে চেয়েছেন। তবে তিনি সমকালের জীবন-যন্ত্রণা ও সমাজ-সমস্যার কথাও উপেক্ষা করেননি। বাঙালি মুসলমানের ভাষা নিয়ে সঙ্কটের সময় বাসনা পত্রিকা বাংলা ভাষার স্বপক্ষে দাঁড়িয়েছিল। হিন্দু-মুসলমান মিলনাকাঙ্ক্ষা ছিল এ পত্রিকার প্রধান লক্ষ্য। হিন্দু-মুসলমান সঙ্কটের সময় শেখ ফজলল করিম রচনা করেন: ‘কোথায় স্বর্গ কোথায় নরক,/ কে বলে তা বহু দূর,/মানুষের মাঝে স্বর্গ-নরক,/ মানুষেতে সুরা-সুর।’ শেখ ফজলল করিমের রচিত গ্রন্থসমূহ হলো- সরল পদ্য বিকাশ, তৃষ্ণা, পরিত্রাণ, ভগ্নবীণা, প্রেমের স্মৃতি, ভক্তি পুষ্পাঞ্জলি, পথ ও পাথেয়, গাথা ইত্যাদি। ১৯৩৬ সালে তাঁর মৃত্যু হয়।

ADD A REVIEW

Your Rating

0 REVIEW for বিবি খাদিজা !

এ রকম আরও বই